ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্টের কাজ

আপনি যদি ফার্মেসির মালিক হয়ে থাকেন তবে আজই ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হয়ে বাড়তি উপার্জন শুরু করুন।

বেশিরভাগ সময় ফার্মেসিতে রোগী আসে কোন প্রেসক্রিপশন ছাড়া। তারা আপনাকে তাদের সমস্যার কথা বলে ঔষধ চায়। কোন প্রেসক্রিপশন ছাড়া সরাসরি ঔষধ দেয়া একদিকে যেমন বেয়াইনি তেমনি ভুল চিকিৎসা হওয়ার সুযোগও বেশী। ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হয়ে আপনি আপনার স্মার্টফোন দিয়ে রোগীকে সরাসরি রেজিস্ট্রারড ডাক্তারের সাথে ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলিয়ে দিতে পারবেন। এবং পরামর্শ অনুযায়ী প্রেসক্রিপশনও পেয়ে যাবেন। এতে করে যেমন রোগী উপকৃত হবে তেমনি আপনিও পেয়ে যাবেন আপনার লভ্যাংশ। এছাড়াও আপনার ফার্মেসির বিক্রিও বেড়ে যাবে বহুগুণে।

ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হওয়ার সুবিধাঃ

সাধারনত ফার্মেসিগুলোতে সার্বক্ষণিক চিকিৎসক বসেন না। অধিকাংশ ফার্মেসিতে ডাক্তারও থাকে না। সেক্ষেত্রে ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হলে আপনি ২৪ঘন্টা ডাক্তার থাকার সুবিধাটি পাবেন। এতে করে আপনার ফার্মেসিতে রোগীদের আনাগনাও বাড়বে। প্রতিটি রোগীকে ডাক্তার দেখালে এর থেকে একটি পারসেন্টেজ আপনি পেয়ে যাবেন। এবং ডাক্তারের দেয়া প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ঔষধ দিলে আপনার ফার্মেসির ঔষধ বিক্রি বহুগুণে বেড়ে যাবে।

কিভাবে ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হবেনঃ

ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হতে হলে প্রথমত আপনাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। এরপর আপনার বেসিক কিছু তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। এরপর আপনার সুবিধাজনক বান্ডল প্যাকেজ কিনে শুরু করুন আয়ের এক নতুন মাধ্যম।

ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হলে ফার্মেসিতে কি কি থাকতে হবেঃ

ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হলে ফার্মেসিতে যে জিনিসগুলো থাকতে হবে তা নিম্নরুপ-

  • স্মার্টফোন
  • ইন্টারনেট সংযোগ বা মোবাইল ডেটা
  • থার্মোমিটার/তাপমাত্রা পরিমাপক
  • টর্চলাইট বা মোবাইল ফোন টর্চলাইট
  • রক্তচাপ এবং হার্ট রেট পরীক্ষা করার জন্য যন্ত্র
  • ডায়াবেটিক্সের জন্য গ্লুকোমিটার
  • ওজন পরীক্ষা করার জন্য স্কেল
  • অন্যান্য সরঞ্জাম যা পরামর্শের জন্য সহায়ক হবে

শর্তাবলী ( ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট হতে যা যা প্রয়োজন )

  1. অবশ্যই আন্ড্রওয়েড স্মার্টফোন থাকতে হবেঃ আপনার স্মার্টফোনে ডাক্তার দেখাও-এর এজেন্ট অ্যাপটি ডাউনলোড করুন এবং শুরু করুন স্বাস্থ্যসেবক হিসেবে আপনার ।
  2. প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কিত জ্ঞানঃ একজন স্বাস্থ্যসেবক হিসেবে কাজ করতে হলে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কিত জ্ঞান থাকতে হবে। যেমনঃ ব্লাড প্রেশার মাপা, তাপমাত্রা মাপা, পালস মাপা ইত্যাদি।
  3. জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট বা জন্মনিবন্ধন সার্টিফিকেটঃ এজেন্ট হিসেবে জয়েন করতে অবশ্যই আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট অথবা জন্মনিবন্ধন সার্টিফিকেট থাকতে হবে।